চীন, ভারত, পাকিস্তান—কার কাছে কত পারমাণবিক অস্ত্র


ভারত ১৯৭৪ সালে প্রথমবারের মতো পারমাণবিক অস্ত্রের পরীক্ষা চালায়। পাকিস্তান এই পরীক্ষা চালায় ১৯৯৮ সালে। তবে পারমাণবিক অস্ত্রের (ওয়ারহেড) সংখ্যায় ভারতের চেয়ে সামান্য পিছিয়ে আছে পাকিস্তান।

অন্যদিকে ১৯৬৪ সালে প্রথমবার পারমাণবিক অস্ত্রের পরীক্ষা চালানো চীন অস্ত্রের সংখ্যা বিবেচনায় প্রতিবেশী ভারত ও পাকিস্তানের চেয়ে অনেকটাই এগিয়ে।

সুইডেনের চিন্তক প্রতিষ্ঠান স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (এসআইপিআরআই) সর্বশেষ বার্ষিক প্রতিবেদনে এমন চিত্র উঠে এসেছে। গতকাল সোমবার প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটে এ প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে।

এসআইপিআরআইয়ের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্তমানে ৯টি দেশের কাছে পারমাণবিক অস্ত্র রয়েছে। দেশগুলো হলো যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, রাশিয়া, ফ্রান্স, চীন, ভারত, পাকিস্তান, উত্তর কোরিয়া ও ইসরায়েল।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, এসব দেশের মধ্যে চলতি বছরের জানুয়ারিতে সবচেয়ে বেশি ৫ হাজার ৪৪টি পারমাণবিক অস্ত্রের মজুত রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে। দেশটির পারমাণবিক অস্ত্রের মজুত গত বছরের তুলনায় কমে এসেছে। ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ৫ হাজার ২৪৪টি পারমাণবিক অস্ত্র ছিল।

একই চিত্র দেখা গেছে রাশিয়ার ক্ষেত্রেও। ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে দেশটির কাছে ৫ হাজারের বেশি পারমাণবিক অস্ত্র ছিল। বছরের ব্যবধানে কিছুটা কমলেও সেই সংখ্যা এখনো ৫ হাজারের বেশি।

এসআইপিআরআই বলছে, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের অস্ত্রের সংখ্যায় কোনো পরিবর্তন হয়নি। যুক্তরাজ্যের কাছে ২২৫টি ও ফ্রান্সের কাছে ২৯০টি পারমাণবিক অস্ত্র আছে।

চলতি বছরের জানুয়ারিতে এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৫০০টি পারমাণবিক অস্ত্র আছে চীনের সংগ্রহে। ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে দেশটির কাছে ৪১০টি পারমাণবিক অস্ত্র ছিল। অর্থাৎ বছরের ব্যবধানে চীনের হাতে এই অস্ত্রের সংখ্যা ৯০টি বেড়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ভবিষ্যতে এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পারমাণবিক অস্ত্রের সংখ্যা বাড়িয়েছে ভারত। ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে দেশটির কাছে ১৬৪টি পারমাণবিক অস্ত্র ছিল। গত জানুয়ারিতে এ সংখ্যা বেড়ে ১৭২ হয়েছে। অন্যদিকে পাকিস্তানের সংগ্রহে পারমাণবিক অস্ত্রের সংখ্যা ১৭০টিতে অপরিবর্তিত আছে।

পারমাণবিক অস্ত্র তৈরির দ্বারপ্রান্তে ইরান
অর্থাৎ গত জানুয়ারিতে পারমাণবিক অস্ত্রের সংখ্যায় পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে গেছে ভারত। চির প্রতিদ্বন্দ্বী দুটি দেশই নতুন ধরনের পারমাণবিক সরবরাহ ব্যবস্থার উন্নয়নে গবেষণা এগিয়ে নিচ্ছে।

এসআইপিআরআই বলছে, উত্তর কোরিয়ার কাছে ৫০টি ও ইসরায়েলের কাছে ৯০টি পারমাণবিক অস্ত্র আছে। আর এ ৯টি দেশের হাতে সব মিলিয়ে পারমাণবিক অস্ত্র আছে ১২ হাজার ১২১টি।


শর্টলিংকঃ