দুর্গাপুরে ঘুষ না পেয়ে ছেলের সামনেই বাবার হাটু ভাঙলো পুলিশ

  • 423
    Shares

দুর্গাপুর(রাজশাহী)  প্রতিনিধি:

রাজশাহীর দুর্গাপুরে ২০ হাজার টাকা ঘুষ চেয়ে না পেয়ে সাইদুল ইসলাম নামের এক ব্যাক্তির পা  ভেঙে দিয়েছে দুর্গাপুর থানার সহকারী উপ পরিদর্শক (এএসআই) হাফিজ।

এতেই ক্ষান্ত হননি এএসআই হাফিজ। ছেলের সামনেই সাইদুল ইসলামকে অমানবিক নির্যাতন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন সাইদুল ইসলাম।

সোমবার রাত ১০ টার দিকে এ ঘটনার পর দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে সাইদুল ইসলামকে।

সাইদুল ইসলাম অভিযোগ করেন, তার ছেলের বউ তাদের বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছিলেন। ওই অভিযোগের কারণে সোমবার রাতে তার ছেলে আসাদুল ইসলামকে গ্রেফতার করে থানায় না নিয়ে হোজা অনন্তকান্দি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নিয়ে যাওয়া হয়।

ছেলেকে ছাড়াতে সেখানেই যান সাইদুল ইসলাম। এ সময় ২০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করে এএসআই হাফিজ। ঘুষের টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এএসআই হাফিজ।

এ সময় ৯’শ টাকা পকেট থেকে বের করে এএসআই হাফিজকে দেন সাইদুল ইসলাম। এতে সন্তুষ্ট হতে পারেননি এএসআই হাফিজ। বাঁশের লাঠি দিয়ে ছেলের সামনেই তার বাম পায়ে আঘাত করা হয়। এতে সাইদুল ইসলামের বাম হাটু ভেঙে যায়।

এ ব্যাপারে দুর্গাপুর থানার ওসি আব্দুল মোতালেবের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ ব্যাপারে কিছু জানেন না বলে দাবি করেন।
এএসআই হাফিজের সাথে কথা বলা হলে তিনি ঘুষ দাবি ও মারপিটের বিষয়টি অস্বীকার করেন।


  • 423
    Shares
শর্টলিংকঃ