প্রথম যোগাযোগ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করল তুরস্ক


ইউএনভি ডেস্ক:

প্রথমবার নিজেদের প্রযুক্তি ও উপদানে তৈরি যোগাযোগ স্যাটেলাইট মহাকাশে উৎক্ষেপণ করেছে তুরস্ক। মঙ্গলবার ভোরে (স্থানীয় সময়) যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের কেপ ক্যানাভেরাল স্পেস ফোর্স স্টেশনের প্যাড থেকে তার্কসাত ৬এ স্যাটেলাইটটি উৎক্ষেপণ করা হয়।

এই স্যাটেলাইটটি উৎক্ষেপণের জন্য স্পেসএক্স কোম্পানির তৈরি ফ্যালকন ৯ মডেলের একটি রকেট ব্যবহার করা হয়েছে। স্পেসএক্স মূলত মহাকাশযান এবং মহাকাশ অভিযানের জন্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন সরঞ্জাম প্রস্তুত করে। এই কোম্পানিটির মালিক বিশ্বের শীর্ষ ধনকুবের ইলন মাস্ক।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট তাইয়েপ এরদোগান তার্কসাত ৬এ’র উৎক্ষেপণকে দেশটির জাতীয় স্যাটেলাইট নির্মাণ প্রকল্পের ইতিহাসের ‘নতুন অধ্যায়’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘এই স্যাটেলাইটটির মোট উপাদানের ৮১ শতাংশ উপদান এবং সফট্ওয়্যার সরবরাহ করেছে তুরস্ক। তার্কসাত ৬এ আমাদের জাতীয় সক্ষমতা ও যোগ্যতার একটি উজ্জ্বল নজির।’

যোগাযোগ বা কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট তার্কসাত ৬এ’র কাজ হবে মূলত টেলি যোগাযোগ এবং টেলিভিশন সম্প্রচারে নির্বিঘ্ন করা।

তুরস্কের পরিবহণ ও অবকাঠামো বিষয়কমন্ত্রী আবদুল কাদির উরালোগ্লু মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘আমরা আমাদের নিজস্ব স্যাটেলাইট যোগাযোগব্যবস্থা নির্মাণে হাত দিয়েছি। এই কর্মসূচির প্রথম ফসল তার্কসাত ৬এ। এই স্যাটেলাইটটির মাধ্যমে আমাদের টেলিভিশন সম্প্রচার এবং টেলিযোগাযোগকে এক নতুন উচ্চতায় পৌঁছাবে।’

বিশেষ করে ভারত, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া ও থাইল্যান্ডের সঙ্গে তুরস্কের যোগাযোগের ক্ষেত্রে এই স্যাটেলাইট ব্যাপকভাবে কাজে দেবে বলে জানিয়েছেন তিনি। তুরস্কের স্যাটেলাইট প্রকল্পের কর্মকর্তারা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, তার্কসাত ৬এ প্রস্তুত করতে তাদের ১০ বছর সময় লেগেছে।


শর্টলিংকঃ