বগুড়ার সেই ইউএনও বদলি

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ইউনভি ডেস্ক:

ফুলগাছ খাওয়ায় ছাগলের মালিককে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা আদমদীঘি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সীমা শারমিনকে স্থানীয় সরকার বিভাগে বদলি করা হয়েছে। বুধবার (৯ জুন) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা প্রশাসক জিয়াউল হক।স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের বদলির আদেশ-সংক্রান্ত একটি চিঠি মঙ্গলবার (৮ জুন) পাঠানো হয়েছে।

এর আগে গত ১৭ মে ফুলগাছ খাওয়ার অভিযোগে ইউএনও সীমা শারমিন একটি ছাগল মালিকের ২ হাজার টাকা জরিমানা করেন। জরিমানা করার ৯ দিন পর মালিক সাহারা বেগমকে না জানিয়ে সেটি বিক্রি করার অভিযোগ ওঠে। ২৬ মে এ বিষয়ে সংবাদ প্রকাশিত হয়। পরের দিন ২৭ মে জরিমানার টাকা ইউএনও নিজে পরিশোধ করেন এবং ছাগল সাহারা বেগমের কাছে ফিরিয়ে দেন।

ছাগল ফেরত দেওয়ার সময় তখন ইউএনও বলেছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ও স্থানীয় সাংবাদিকদের সামনে জরিমানার টাকা আমি দিয়েছি। তাকে সংশোধনের জন্য জরিমানা করেছিলাম, শাস্তি দেওয়ার জন্য নয়। আর সেই নারীর ছাগল বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ সত্য নয় বলে দাবি করেন তিনি।বুধবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সীমা শারমিনের সঙ্গে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

জেলা প্রশাসক জিয়াউল হক ঢাকা পোস্টকে বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালতের কোনো বিষয়ে বদলির ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, বিষয় ঠিক নয়। স্বাভাবিক নিয়মে তাকে স্থানীয় সরকার বিভাগে বদলি করা হয়েছে। এ-সংক্রান্ত একটি চিঠি গতকাল মঙ্গলবার এসেছে। এটা নিয়মিত বদলি।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
শর্টলিংকঃ