‘বন্দুকযুদ্ধে’ নারীসহ তিন মাদক পাচারকারী নিহত

  • 19
    Shares

ইউএনভি ডেস্ক:

কক্সবাজারের টেকনাফের মৌলভীবাজারে পুলিশ ও বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নারীসহ ৩ ইয়াবা পাচারকারী নিহত হয়েছে।শনিবার (৩০ মার্চ) ভোরে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, হ্নীলা ইউনিয়নের আলী আকবরপাড়া এলাকার মিয়া হোসেনের ছেলে মাহমুদুর রহমান ও হোয়াইক্ষ্যং নয়াপাড়া এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে মোহাম্মদ আফছার।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, ‘রাতে মৌলভীবাজার এলাকায় ইয়াবা উদ্ধারে গেলে ইয়াবা ব্যবসায়ীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্ম রক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়।

এ সময় ইয়াবা ব্যবসায়ীরা পিছু হটলে ঘটনাস্থল থেকে আহত অবস্থায় দু’জনকে উদ্ধার প্রথমে উপজেলা হাসপাতালে পরে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।’

ওসি আরও জানান, ঘটনাস্থল থেকে ছয়টি দেশীয় তৈরি বন্দুক, ১০ হাজার ইয়াবা ও ১৮ রাউন্ড তাজা কার্তুজ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহগুলো হাসপাতাল মর্গে রাখা রয়েছে।

নিহত দুজনের বিরুদ্ধে মাদক, হত্যাসহ পাঁচটি করে মামলা রয়েছে। এ ঘটনায় পৃথক মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

অন্যদিকে টেকনাফের দমদমিয়া এলাকায় বিজিবির সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে রুমানা আক্তার নামে এক রোহিঙ্গা ইয়াবা পাচারকারী নিহত হয়েছে। সে লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বদরুল ইসলামের স্ত্রী।

টেকনাফস্থ ২ বিজিবির ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক শরীফুল ইসলাম জোমাদ্দার এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ইয়াবা নিয়ে আসছে এক নারী এমন খবরে অভিযানে যায় বিজিবি। এ সময় বিজিবিকে লক্ষ্য করে ছুড়লে বিজিবিও পাল্টা গুলি চালায়। পরে রুমানার মরদেহ ও ১০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।


  • 19
    Shares
শর্টলিংকঃ