মোমবাতি জ্বালিয়ে এইচএসসি পরীক্ষা দিলেন শিক্ষার্থীরা

  • 17
    Shares

ইউএনভি ডেস্ক:

সোমবার থেকে শুরু হওয়া এইচএসসি/সমমান পরীক্ষায় রংপুরের কেন্দ্রগুলোতে মোমবাতির আলোয় পরীক্ষা দিতে হয়েছে শিক্ষার্থীদের। কালবৈশাখী ঝড়ের তাণ্ডবে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও ঘন ঘন বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে বেশির ভাগ পরীক্ষা কেন্দ্রে এই চিত্র দেখা গেছে।

সোমবার (১ এপ্রিল) এইচএসসি পরীক্ষার প্রথম দিনে পরীক্ষা কেন্দ্রগুলোতে আলো স্বল্পতায় পরীক্ষা দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। জানা গেছে, আগের রাতের কালবৈশাখী ঝড় আর বৃষ্টিতে রংপুরের সবগুলো ফিডে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন ছিল। অনেক এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ ছিঁড়ে পড়ে গেছে। এসব কারণে সাময়িক বিদ্যুৎ বিভ্রাট তৈরি হয়।

তবে বেলা বারোটার পর থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ চালু করা হয় বলে নিশ্চিত করেন নেসকোর নির্বাহী প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন।

এদিকে, সোমবার সকালে রংপুর নগরীর শালবন এলাকার সরকারি বেগম রোকেয়া কলেজ কেন্দ্রে গিয়ে দেখা পরীক্ষার্থীরা মোমবাতি হাতে কেন্দ্রে প্রবেশ করছে। কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, বিদ্যুৎ বিভ্রাট ও আলো স্বল্পতার কারণে মোমবাতি নিয়ে পরীক্ষা দিতে যাচ্ছেন তারা।

অন্যদিকে, সচেতন অভিভাবকরা অভিযোগ করেন, কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা এবং বিদ্যুৎ বিভাগের গাফলতির কারণে এই পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। এরজন্য সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের দায়িত্ববানদের আগে থেকে বিকল্প ব্যবস্থা নেওয়া উচিত ছিল।

এ ব্যাপারে সরকারি বেগম রোকেয়া কলেজ অধ্যক্ষ মোবাখখারুল ইসলাম জানান, মধ্যরাতে ঝড় হওয়ায় নগরীর বেশিরভাগ এলাকায় বিদ্যুৎ না থাকায় শিক্ষার্থীরা মোমবাতি জ্বালিয়ে পরীক্ষা দিচ্ছেন। এতে তাদের ভীষণ সমস্যা হচ্ছে। তবে আমরা বিদ্যুৎ বিভাগের সাথে কথা বলে দ্রুত সংযোগ চালু করার জন্য বেশ কয়েকবার চাপ দিয়েছি।

সরকারি বেগম রোকেয়া কলেজের মতো রংপুর মহানগরী সহ আশপাশের উপজেলাগুলোর পরীক্ষা কেন্দ্রেও একই চিত্র ছিল বলে জানান গেছে। কারমাইকেল কলেজের পরীক্ষার কক্ষগুলোতে আলো স্বল্পতা ছিল। সকাল দশটায় পরীক্ষা শুরুর পরও বৃষ্টির পানি কক্ষে জমাট বেধে থাকায় পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের ঝাড়ু–দিতে দেখা যায়।

নেসকোর নির্বাহী প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন জানান, রংপুর শহরের আশপাশে বিশেষ করে পল্লী বিদ্যুৎ এর আওতাভুক্ত এলাকাগুলোতে মধ্যরাত থেকেই বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। অনেক স্থানে কালবৈশাখী ঝড়ে ঘর-বাড়ি, গাছ-গাছালি ও বিদ্যুৎ সংযোগের খুঁটি পড়ে গেছে এবং ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ লিমিটেড রংপুর এর নির্বাহী প্রকৌশলী (জিএমডি) মোঃ শাহজাহান আলী, মধ্যরাতে ঝড়ের তাণ্ডবে রংপুরসহ আশপাশের এলাকাগুলো বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। পরীক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে আমরা জরুরি ভিত্তিতে পৌনে বারোটার দিকে সংযোগ সচল করেছি।


  • 17
    Shares
শর্টলিংকঃ