রাবি ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতিতে এনেছে পরিবর্তন

  • 41
    Shares

রাবি সংবাদদাতা:
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতিতে আংশিক পরিবর্তন এনেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। নতুন নিয়মে পূর্বের ইউনিট ভিত্তিক সীমাবদ্ধতা বাতিল করে সবগুলো ইউনিটেই ভর্তীচ্ছুদের অংশগ্রহণের সুযোগ রাখা হয়েছে। এ ছাড়াও আবেদন ফি দুই হাজার ৩৫টাকা থেকে ১২শ ৫৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত উপ-কমিটির সভায় এসব সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান। কমিটির সিন্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ২০-২২ অক্টোবর ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানা যায়।

এ বিষয়ে অধ্যাপক লুৎফর রহমান জানান, মঙ্গলবার বিকেলে উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুস সোবহানের সভাপতিত্বে উপ-কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে পরীক্ষা পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। তিনি আরও জানান, নতুন এই নিয়মের ফলে এখন আর ইউনিট ভিত্তিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সীমাবদ্ধতা থাকছে না। ফলে একজন ভর্তীচ্ছু প্রতিটি ইউনিটেই পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ পাবে। এ ছাড়াও আবেদন ফি দুই হাজার ৩৫ টাকা থেকে কমিয়ে ১২শ ৫৫টাকা করা হয়েছে।

এর আগে গত ৩ আগস্ট ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে উপকমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে কলা অনুষদের (কলা, আইন, সামাজিক বিজ্ঞান, চারুকলা অনুষদ এবং শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট) পক্ষ থেকে ‘এথ ইউনিটে বিজ্ঞান ও মানবিক শাখার শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ রাখার আহ্বান জানানো হয়।

এবার ভর্তীচ্ছু শিক্ষার্থীদের প্রথমে অনলাইনে ৫৫ টাকা দিয়ে প্রাথমিক আবেদন করতে হবে। প্রাথমিক আবেদন থেকে প্রতি ইউনিটে সর্বোচ্চ ৩২ হাজার শিক্ষার্থীকে চূড়ান্ত পরীক্ষায় বসার সুযোগ দেওয়া হবে। প্রাথমিক আবেদনে উত্তীর্ণ প্রতি শিক্ষার্থীকে ১২শ টাকা দিয়ে চূড়ান্ত আবেদন করতে হবে। ‘এথ, ‘বিথ ও ‘সিথ এই তিনটি ইউনিটে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।


  • 41
    Shares
শর্টলিংকঃ