করোনার চিকিৎসায় ম্যালেরিয়া প্রতিষেধক প্রয়োগে বাংলাদেশে ভালো ফল

  • 67
    Shares

ইউএনভি ডেস্ক:

করোনাভাইরাসের কড়ালগ্রাসে বিধ্বস্ত গোটা পৃথিবী। গত ১০০ বছরে মানবসভ্যতা এমন মহামারি দুর্যোগ দেখেনি। নতুন এই দুর্যোগে আক্রান্ত হচ্ছে লাখো মানুষ, মারা যাচ্ছে হাজার হাজার। এ ভাইরাস সামলাতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছে উন্নত বিশ্বের দেশগুলো।

বাংলাদেশও এ ভাইরাসে আক্রান্ত। ইতিমধ্যে ৩৯ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে, প্রাণ হারিয়েছেন ৪ জন। এমন পরিস্থিতি কারও দিকে কারও তাকানোর সুযোগ নেই। নিজেদের যা কিছু আছে তা-ই নিয়ে লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুতি নিতে হচ্ছে।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের গাইডলাইন অনুসারে বাংলাদেশও কভিড-১৯-এর চিকিৎসায় পরীক্ষামূলক ওষুধ প্রয়োগ করেছে। তাতে আশাব্যঞ্জক ফল পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর।

ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর জানিয়েছে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এমন ব্যক্তির চিকিৎসায় ম্যালেরিয়ায় ব্যবহৃত হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন এবং অ্যাজিথ্রোমাইসিন গ্রুপের ওষুধ প্রয়োগ করা হয়েছে। এতে ভালো ফলাফল পাওয়া গেছে।

আমেরিকার সরকারি রোগ নিয়ন্ত্রণ বিভাগের গবেষণার তথ্য দিয়ে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান বলেন, হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন এবং অ্যাজিথ্রোমাইসিন গ্রুপের ওষুধ করোনার চিকিৎসায় কাজ করেছে। দেশে এ গ্রুপের ওষুধ মজুত আছে। প্রায় ২০ হাজার রোগীকে চিকিৎসা দেওয়া যাবে। ওষুধগুলো করোনার চিকিৎসায় স্বাস্থ্য অধিদফতর ও সিএমএইচে দেয়া হবে। তবে কেউ এটি বাজারজাত করতে পারবে না।

তিনি আরও বলেন, হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন যে কেউ যত্রতত্র ব্যবহারের দরকার নেই। করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী এ ওষুধ গ্রহণ করতে হবে।

যুক্তরাষ্ট্র, ইরান, চীনসহ বেশ কয়েকটি দেশ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন এবং অ্যাজিথ্রোমাইসিন জাতীয় ওষুধ করোনা সংক্রমিত ব্যক্তিদের ওপর প্রয়োগ করে পরীক্ষা-নীরিক্ষা চালাচ্ছে। এতে ভালো ফল পাওয়া গেছে। এছাড়াও সম্প্রতি জাপানও ইবোলার ওষুধ রেমডেসিভির করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির শরীরে প্রয়োগ করে ভালো ফল পেয়েছে।


  • 67
    Shares
শর্টলিংকঃ