রাজশাহীতে লাশ আটকে চাঁদা দাবি, গ্রেপ্তার ৭

  • 8
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক:

হাসপাতালে মৃত এক ব্যক্তির লাশ আটকে চাঁদা দাবির অভিযোগে রাজশাহীতে সাতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এরা লাশ বহনকারী গাড়ীর সংঘবদ্ধ চাঁদাবাজ ও দালাল চক্রের সদস্য বলে পুলিশ জানিয়েছে।

গ্রেপ্তার সাতজন হলেন- মো. আব্দুল্লাহ (৩২), মো. রাজন (৩৫), মো. বাদশা (৪০), এমদাদুল হক (৪০), মো. বিপ্লব (৫০), জাহিদ হাসান (২৬) ও জানারুল ইসলাম (২৮)। রাজশাহী মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায় তাদের বাড়ি।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি জানান, রোববার বিকালে নগরীর লক্ষ্মীপুরে একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জয়নাল আবেদীন নামে মেহেরপুরের এক ব্যক্তি মারা যান। তখন স্বজনরা নিজস্ব গাড়িতে করে লাশটি নিয়ে যাচ্ছিলেন। কিন্তু তখন আব্দুল্লাহ ও রাজন তাদের পথ আটকান।

তারা লাশ আটকে চাঁদা দাবি করেন। বলেন, এখান থেকে কোন লাশ নিজ এলাকায় নিয়ে যেতে হলে তাদের রাজশাহীর অ্যাম্বুলেন্সে করেই নিয়ে যেতে হবে। তা না হলে তাদের লাশ বহনকারী মাইক্রো সমিতিকে ১০ হাজার টাকা চাঁদা দিতে হবে। এভাবে তারা লাশ আটকে রাখেন।

বাধ্য হয়ে মৃত ব্যক্তির স্বজনেরা আরএমপির গোয়েন্দা শাখায় (ডিবি) খবর দেয়। এরপর প্রথমে আব্দুল্লাহ ও রাজনকে আটক করা হয়। পরে তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে অন্য পাঁচজনকে আটক করা হয়। এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। মৃত ব্যক্তির স্বজনেরাও পরে লাশ নিয়ে বাড়ি গেছেন।


  • 8
    Shares
শর্টলিংকঃ