সবকিছুতে ভুল ধরা বিএনপির বদঅভ্যাস : পাবনায় তথ্যমন্ত্রী

  • 20
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক, পাবনা:
আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ বলেছেন, আসলে সবকিছুতে ভুল ধরা বিএনপির বদঅভ্যাসে পরিণত হয়েছে। বিএনপি সে বদঅভ্যাস থেকে বেরিয়ে আসবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।শুক্রবার সকাল ১১টায় পাবনা সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে এসব কথা বলেন তথ্য মন্ত্রী।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, মির্জা ফকরুল ইসলাম যেভাবে কথা বলেছেন তাতে মনে হয় বেসরকারি সংস্থার টাকা সরকারি কোষাগারে নেয়া হবে। বিষয়টি তা নয়। এগুলো সরকারের বিভিন্ন সংস্থার উদ্বৃত্ত টাকা সরকারি কোষাগারে নেয়ার জন্য সংসদে বিল পাস হয়েছে। এটি নি:সন্দেহে একটি ভাল আইন। এর মাধ্যমে অর্থনৈতিক কাঠামো শক্তিশালী হবে।

সিটি নির্বাচেন ভোটারের উপস্থিতি কমের বিষয়ে জানতে চাইলে মন্ত্রী এ সময় গণমাধ্যমকে বলেন, সিটি নির্বাচনে ইভিএম নিয়ে বিএনপি বিভ্রান্তি ছড়িয়েছে, সেইসাথে নির্বাচনকে আন্দোলনের অংশ বলায় জনগনের মাঝে ভীতি ও আশঙ্কা ছিল। যার কারণে ভোটার উপস্থিতি ছিল কম। আসলে বিএনপি অংকে ভুল করেছে।

এরপর মন্ত্রী পাবনা সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের আব্দুস সাত্তার মিলনায়তনে জেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে তৃণমুল প্রতিনিধি সভা উপস্থিত হন। সেখানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম। প্রধান বক্তার বক্তব্য দেন তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদ। অনুষ্ঠানে  আওয়ামীলীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেন, দেশে এত উন্নয়ন কাজ করার পরও দুই সিটি নির্বাচনে ভোট কেন কম পড়লো, কেন আমরা ভোটারদের উদ্বুদ্ধ করতে পারলাম না। সিটি নির্বাচনে যা হয়েছে তা সুখকর নয়। শুধু মুজিব কোট লাগিয়ে জয়বাংলা শ্লোগান দিলে আগামীতে ভোট পাওয়া যাবে না। এখান থেকে শিক্ষা নিতে হবে। আগামীতে নির্বাচনে হলে আওয়ামীলীগ আবারো জয়লাভ করবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

নাসিম আরো বলেন, বিএনপি একটি মাজা ভাঙ্গা দল। তারা আন্দোলনে নামতে পারে না, ভয় পায়। নির্বাচনের দিন ঘর থেকে বের হয় না। নিজেদের দল নেই, তারা অন্য দলের নেতাদের ভাড়া করে নিয়েও সফল হতে পারেনি। তাই মনে রাখতে হবে সামনে কঠিন সময়। সবাইকে একসাথে লড়াই করতে হবে।

সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন। জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল রহিম লাল’র সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক গোলাম ফারুক প্রিন্স এমপি’র পরিচালনায় সভায় অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য দেন, আওয়ামীলীগের সদস্য নুরুল ইসলাস ঠান্টু, মেরিনা জামান, আকতার জাহান, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক এ্যাড: শামসুল হক টুকু এমপি, সহ সভাপতি মকবুল হোসন এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ ফিরোজ কবির এমপি, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নাদিরা ইয়াসমিন জলি এমপি প্রমুখ।

আরও পড়তে পারেন গোমস্তাপুরে ৭ বাংলাদেশিকে বিএসএফের পুশইন


  • 20
    Shares
শর্টলিংকঃ