করোনা সতর্কতায় রাজশাহীকে এখনই লকডাউনের পরামর্শ

  • 237
    Shares

বিশেষ প্রতিবেদক : 

করোনা সতর্কতায় এখনই রাজশাহীকে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত। তা না হলে ইতালির মতোই ভয়াবহ বিপর্যয়ের মুখে পড়তে হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. গোপেন্দ্রনাথ আচার্য্য। রোববার দুপুরে তাঁর কার্যালয়ে ইউনিভার্সাল২৪নিউজকে দেয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, এটা এখন ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে। এ অবস্থায় রাজশাহীকে লকডাউনের জন্য সিটি মেয়রকে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। লকডাউনে না গেলে এ থেকে উত্তরণের পথ পাওয়া যাবে না বলেও সতর্ক করেছেন তিনি।

তিনি বলেন, যারা বিদেশ থেকে আসছে তাদেরকে চিহ্নিত করে হোম কোয়ারেন্টাইনে  নেয়া হচ্ছে। এরইমধ্যে কয়েকজনের দেহে করোনা সংক্রমণের প্রাথমিক উপসর্গও পাওয়া গেছে। তাদের পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। সন্দেহভাজনরা নাটোর, সিরাজগঞ্জ, পাবনা ও জয়পুরহাট জেলার বাসিন্দা। এদের মধ্যে একজন চিকিৎসকও রয়েছেন।

তিনি জানিয়েছেন, বিদেশ ফেরত ও তাদের সংস্পর্শে থাকা ব্যক্তিদের হাম কোয়ারেন্টাইনের নেয়া হয়েছে। রাজশাহী বিভাগের রোববার নতুন করে এক হাজার ৪৯৫জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় আনা হয়েছে। এরমধ্যে রাজশাহীতে ৭৬জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৩৬জন, নওগাঁতে ৮৮৪জন, নাটোরে ১০৮জন, জয়পুরহাটে ১৪জন, বগুড়ায় ১৩০জন, সিরাজগঞ্জে ১৬৮জন ও পাবনায় ৭৯জন।

গেল ১০ মার্চ থেকে এ পর্যন্ত তিন হাজার ২১৬জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এরমধ্যে হোম কোয়ারেন্টাইনে মেয়াদ (১৪দিন) পার হয়ে যাওয়ার পরও কোনো উপসর্গ দেখা না দেয়ায় সুস্থ হিসেবে ১২৪জনকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।  আমরা বলছি, যারা বিদেশ থেকে আসছে তাদের অবশ্যই হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। তা না হলে তাদের পরিবারসহ আমাদের সবার ক্ষতি করবে।  এজন্য জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে। যেন মানুষ থেকে মানুষে ছড়িয়ে না পড়ে। আর এজন্যই লকডাউন।

ডা. গোপেনন্দ্রনাথ আচার্য্য

ডা. গোপেন্দ্রনাথ আচার্য্য বলছিলেন,  চীন ও দক্ষিণ কোরিয়া খুব কড়াকড়িভাবে লকডাউন করায় তারা দ্রুত নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছে। কিন্তু ভুল করেছিল ইতালি। করোনা ধরা পড়ার পরও তাদের  রিলাক্টেড ভাব ছিল। গুরুত্ব দেয় নি।  হোম কোয়ারেন্টাইন মেনটেইন করে নি। গণপরিবহন ব্যবহার করছিল। এটাই এখানেও ভুল হচ্ছে। গণপরিবহন পরিহার করারও আহ্বান জানান তিনি।

তবে করোনা নিয়ে কোনো ধরনে আতঙ্ক নয় সচেতন থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। বলেন,  অন্য কোনো গুরুতর অসুখ না থাকলে করোনা থেকে সুস্থতার হার ৯৫ভাগের ওপরে। কাজেই এ নিয়ে কোনো ধরনের আতঙ্ক না ছড়িয়ে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলারও পরামর্শ দেন তিনি।

তবে এ বিষয়ে রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু আসলাম জানান, রাজশাহীকে লকডাউনের বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয় নি। তবে স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে পরামর্শ দিলে তা ভেবে দেখবে জেলা প্রশাসন।


  • 237
    Shares
শর্টলিংকঃ