কলেজছাত্র ফিরোজের হাত বিচ্ছিন্ন হওয়ার ঘটনায় বাস চালক গ্রেফতার

  • 46
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক :

রাজশাহীর কাটাখালিতে বাসযাত্রী ও কলেজছাত্র ফিরোজ সরদারের হাত বিচ্ছিন্ন হওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত বাস চালক ফারুক হোসেন সরকারকে (৩৯) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় পুঠিয়া বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এছাড়া আটক হয়েছে ট্রাকও। রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত উপ-কমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান,  গত ২৮ জুন সন্ধ্যায় কাটাখালি পৌরসভার সামনে রাজশাহী-ঢাকা মহাসড়কে চলন্ত বাসে রাজশাহী কলেজের সমাজকর্ম বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী ফিরোজ সরদারের ডান হাত বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। তার বাড়ি বগুড়ার নন্দীগ্রাম থানার নামোইট গ্রামে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরদিন ফিরোজের বাবা মাহফুজুর রহমান বাদী হয়ে কাটাখালী থানায় এক মামলা করেন। এরপরই বাস ও ট্রাকটি শনাক্ত করতে অভিযানে মাঠে নামে পুলিশ। শনিবার রাতে ‘মোহাম্মদ পরিবহন’ নামের একটি বাস (ঢাকা মেট্রো-ব ১৫-০৪৬২) নগরীর শিরোইল বাস টার্মিনাল থেকে জব্দ করা হয়। ফিরোজ এই বাসে চড়েই বগুড়া থেকে রাজশাহী ফিরছিলো।

এর প্রায় এক সপ্তাহ পর পুঠিয়া থেকে গ্রেফতার করা হলো মোহাম্মদ পরিবহনের চালক  ফারুক হোসেন সরকারকে। আজ সকাল ৭ টায় পুঠিয়া বাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়া  ফিরোজের হাত চাপ দেয়া ট্রাকটি সনাক্ত করে  বুধবার রাত ১১ টায় আটক করা হয়েছে। তবে এবিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে জানিয়েছেন আরএমপির মুখপাত্র।

আরও পড়ুন…

রাজশাহীতে চলন্ত বাসে কলেজছাত্রের হাত বিচ্ছিন্ন

‘চলন্ত বাসে বিচ্ছিন্ন হওয়া হাতটি আর জোড়া লাগবে না’


  • 46
    Shares
শর্টলিংকঃ