যেসব সুবিধা থাকছে ডাক বিভাগের মোবাইল ব্যাংকিং `নগদ` সার্ভিসে

  • 6
    Shares

দেশে দিন দিন বেড়েই চলেছে মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস। সহজ এবং দ্রুততম সময়ে এই ডিজিটাল ব্যাংকিং জনপ্রিয় হয়ে উঠছে সকল শ্রেণীর মানুষের কাছে। ডিজিটাল পদ্ধতিতে মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিসে এতো দিন শুধু বেসরকারি খাতের নিয়ন্ত্রণে থাকলেও এবার সরকারিভাবে চালু হতে যাচ্ছে ডিজিটাল পদ্ধতির এই মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস।

এ খাতে নতুন সংযোজন ”নগদ”। ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাবান্ধব মোবাইল ব্যাংকিং সেবাটি নিয়ে এসেছে সরকারের ডাক বিভাগ।গত মঙ্গলবার বাংলাদেশ ডাক বিভাগের ডিজিটাল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’-এর উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গত ১ অক্টোবর থেকে অনানুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করে ডাক বিভাগের পরিচালিত মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস নগদ। মোবাইল সংযোগে ইউএসডি কোডের মাধ্যমে এবং ইন্টারনেট সহযোগে অ্যাপের মাধ্যমে মিলছে সেবাটি। মূলত বিদ্যমান মোবাইল ব্যাংকিং সেবাগুলোর চেয়ে কয়েকগুণ বেশি লেনদেন সীমা এবং ব্যালেন্স সুবিধা অনলাইন নির্ভর শ্রেণীকে বেশ আকর্ষণ করছে। পাশাপাশি সরকারের সংশ্লিষ্টতা ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনা এই সেবায় কাছে টানছে শহুরে ও প্রান্তিক নাগরিকদের।

যুগ যুগ ধরে ডাক বিভাগ গ্রাহকদের যেসব আর্থিক সেবা প্রদান করে আসছে সেগুলো ‘নগদ’ সেবার মাধ্যমে ডিজিটালাইজড হয়েছে। প্রান্তিক ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ীদের জন্য ‘নগদ’ হবে দারুণ সুযোগ। দিনে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত লেনদেনের সুযোগ থাকায় এটি প্রান্তিক এলাকার ছোট ছোট ব্যবসায়ীদের আর্থিক লেনদেনের প্রয়োজনীয়তা মেটাতে সুযোগ তৈরি করবে। পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট গ্রাহক চাইলে ‘নগদ’ থেকে নির্দিষ্ট দিন তারিখ পর্যন্ত কত লেনদেন করেছেন তাও জানতে পারবেন। ফলে দেশের বড় একটা অংশ আর্থিক লেনদেন যেটি ব্যাংকিং চ্যানেলের বাইরে ছিল সেটি নগদের মাধ্যমে একটি যথোপযুক্ত কাঠামোর আওতায় আসবে। ডিজিটাল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসের খুঁটিনাটি ও অ্যান্টি মানি লন্ডারিং নিয়ে কর্মশালার মাধ্যমে সারাদেশে দুই হাজার জনকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।

ডাক বিভাগের এই নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ব্যবহার করলে গ্রাহক ক্যাশ ইন অথবা ক্যাশ আউট এর ক্ষেত্রে গ্রাহক প্রতিবার সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা এবং সর্বমোট ১০ বারে আড়াই লাখ টাকা দৈনিক লেনদেন করতে পারবেন। এভাবে মাসে সর্বোচ্চ ৫ লাখ টাকা ক্যাশ ইন অথবা ক্যাশ আউট করতে পারবেন সর্বোচ্চ ৫০ বারে। নগদ অ্যাকাউন্ট এর মাধ্যমে গ্রাহকরা শুধু ক্যাশ ইন, ক্যাশ আউট নয়, সেন্ড মানি, টপ আপ (মোবাইল অ্যাকাউন্ট রিচার্জ) সুবিধাও গ্রহণ করতে পারবেন। ক্যাশ ইন এর জন্য গ্রাহককে কোন ধরনের চার্জ প্রদান করতে হবে না। তবে ক্যাশ আউটের ক্ষেত্রে গ্রাহককে প্রতি হাজারে ১৮ টাকা চার্জ প্রদান করতে হবে। নগদ অ্যাপ এর মাধ্যমে ক্যাশ আউট করা হলে প্রতি হাজারে ১৭ টাকা চার্জ প্রযোজ্য হবে।

ডাক বিভাগ সূত্রে জানা গেছে প্রাথমিকভাবে জেলা ও উপজেলা পর্যায় নগদ সেবার আওতায় আসছে। পরবর্তী সময়ে ইউনিয়ন ও গ্রাম পর্যায়ের শাখাগুলোকে এ সেবার আওতায় আনা হবে। নগদে এখন পর্যন্ত ক্যাশইন, ক্যাশ আউট, সেন্ড মানি এবং মোবাইল ফোনের ব্যালেন্স টপ-আপ ইত্যাদি করা যাচ্ছে। আগামীতে আরও প্রয়োজনীয় ফিচার যোগ করা হবে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।


  • 6
    Shares
শর্টলিংকঃ