রাজশাহীতে বিপদসীমা ছুঁই ছুঁই করছে পদ্মার পানি

  • 1.2K
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক :

রাজশাহী পয়েন্টে এখন বিপদসীমা ছুঁই ছুঁই করছে পদ্মার পানি। এ অবস্থায় ঝুঁকিতে পড়েছে রাজশাহী রক্ষা বাঁধ। তবে বিপদ ঠেকাতে রাতদিন সেখানে বালুর বস্তা ফেলা হচ্ছে। যদিও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা বলছেন, রাজশাহীতে বন্যার আশঙ্কা নেই।

পানি ওঠায় নিরাপদে সরে যাচ্ছে নদীপাড়ের বাসিন্দারা

ভারতের বিহার ও উত্তর প্রদেশে প্রবল বন্যা কারণে সোমবার ফারাক্কার সব লকগেট খুলে দেয়া হয়েছে। যার ফলে উজান থেকে পানি ছুটে আসছে পদ্মায়। প্রবল স্রোত এখন আঘাত হানছে রাজশাহী শহর রক্ষা বাঁধের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ ‘টি’ বাঁধে। টি-বাঁধ রক্ষা না করা গেলে গোটা রাজশাহী শহরই তলিয়ে যেতে পারে- এমন আশঙ্কায় রাতদিন বালুর বস্তা ফেলা হচ্ছে। এরমধ্যে নিম্নাঞ্চলে পানি ঢুকতে শুরু করেছে। তবে বন্যার আশঙ্কার উড়িয়ে দিচ্ছেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা। তবে চরাঞ্চলে বসবাসকারী কয়েকশ’ মানুষকে নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী মোহাম্মদ আলী বলেন, পদ্মার পানি বাড়লেও আতঙ্কিত হওয়ার কোন কারণ নেই। রাজশাহী শহরে পানি প্রবেশের কোন আশঙ্কা নেই। শহরের সাথে সংযুক্ত স্লুইসগেইটগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। তবে রাজশাহীর গোদাগাড়ী, পবা, বাঘা ও চারঘাট উপজেলার চরাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। সেগুলোতে বন্যায় ক্ষতি হবার আশংকা রয়েছে।

রাজশাহী জেলা প্রশাসক হামিদুল হক জানিয়েছেন, সোমবার পর্যন্ত রাজশাহীর চারটি উপজেলার চররাঞ্চলের কয়েক হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়ে। যাদের মধ্যে এখন পর্যন্ত  ৬০০ পরিবারকে চরাঞ্চল থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এ কাজ অব্যাহত রয়েছে। সরিয়ে নেয়া লোকজনকে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে।


  • 1.2K
    Shares
শর্টলিংকঃ