ঐতিহ্যবাহী ষাঁড়ের লড়াইয়ে মুখর রূপসা পাড়

  • 10
    Shares

ইউএনভি ডেস্ক:

‘শিংয়ে শিংয়ে গুঁতাগুঁতি, চলছে ষাঁড়ের লড়াই, বিরাট গরু আসছে তেড়ে, করছে যেনো বড়াই।’ শিশুদের এ ছড়ার সাথে মিল রেখেই খুলনায় অনুষ্ঠিত হলো ঐতিহ্যবাহী ষাঁড়ের লড়াই।

মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে দিনভর খুলনার রূপসা উপজেলার আইচগাতি গ্রামের জে কে এস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠে এ ষাঁড়ের লড়াই অনুষ্ঠিত হয়। লড়াইয়ের আয়োজন করে জে কে এস ক্রীড়াসংস্থা। সন্ধ্যা পর্যন্ত চলা এ প্রতিযোগিতায় এ অঞ্চলের প্রায় ২০ জোড়া ষাঁড় অংশগ্রহণ করে।

দয়াল, হাতি, পাগলা, কৃষ্ণ, দানব, মহেশ ছাড়াও হরেক রকমের আকর্ষণীয় ও বিচিত্র নামের ষাঁড় আসে লড়াইতে। লড়াইয়ে অংশ নেওয়া প্রতিটি ষাঁড়ই বাহারি রংয়ের ও আকর্ষণীয় দেহের অধিকারী ছিল। এ সময় ষাঁড় মালিকেরা বিভিন্ন রকমের বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে মাঠের আশপাশ উৎসবমুখর পরিবেশের সৃষ্টি করেন।

এ অঞ্চলের ঐতিহ্যবাহী এ ষাঁড়ের লড়াই দেখতে দূরদূরান্ত থেকে আসা কৌতূহলী দর্শনার্থী ও গ্রামবাসীদের উপচে পড়া ভিড় ছিল লক্ষণীয়। প্রতিবছর এ ষাঁড়ের লড়াইকে কেন্দ্র করে রূপসা পাড়ের আইচগাতি গ্রামে গ্রামীণ মেলা বসে। মেলা উপলক্ষে বাহারি পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসে হরেক রকম বিক্রেতারা।

শিশু-কিশোরদের নজর কাড়তে গ্রামীণ এ মেলায় খেলনা মাটির পুতুল, পালকি, লাটিম, বেলুন, বাঁশি থেকে শুরু করে অনেক রকমের পণ্য নিয়ে বসে দোকানিরা। নাগরদোলা ও চরকি ঘোরার আয়োজনও করা হয় এ ষাঁড়ের লড়াইয়ের গ্রামীণ মেলায়। ষাঁড়ের লড়াইয়ে গেলে বলাই যায় এ যেনো বিশুদ্ধ বাঙালিয়ানা।


  • 10
    Shares
শর্টলিংকঃ