রঙ-তুলির আঁচড়ে আনন্দময় হয়ে উঠছে স্কুল

  • 35
    Shares

পবিত্র তালুকদার, চাটমোহর :
স্কুলের প্রবেশ মুখ ও দেয়ালে দেয়ালে শোভা পাচ্ছে বাংলা-ইংরেজি বর্ণ। শ্রেণীকক্ষ ও ভবনের চারপাশে জাতীয় ফলমূল, দেশ-প্রকৃতি, ছোটদের মিনা কার্টুনসহ নানা মনীষীর ছবি। এমনিভাবেই রঙ-তুলির আঁচড়ে পাল্টে যাচ্ছে পাবনার চাটমোহর উপজেলার প্রতিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

শিক্ষার্থীদের ছোট বেলা থেকেই শিল্পমনা মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে, দেশ-প্রকৃতি সম্পর্কে জানাতে এবং স্কুলগামী করতে উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস এমন উদ্যোগ নিয়েছে।

সরেজমিন উপজেলার দোলং, মল্লিকপুর ও নঈমউদ্দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, চারুশিল্পী মানিক কুমার দাস দেয়ালে দেয়ালে এঁকেছেন ছোটদের মিনা কার্টুন, ফুল-ফল ও পশু-পাখির ছবি।

এছাড়া প্রতিটি শ্রেণীকক্ষে আঁকা হয়েছে বাংলাদেশের ম্যাপ ও গুণীজনের প্রতিকৃতি ও নানা ধরণের নীতিবাক্য। পাশেই দাঁড়িয়ে গভীর মনযোগ সহকারে ছবি আঁকানো দেখছে শিশু শিক্ষার্থীরা। এখন পর্যন্ত উপজেলার ১০টি স্কুলে এমন আঁকিবুঁকির কাজ করা হয়েছে।

সরকারি স্লিপফান্ডের টাকা ব্যয়ে পর্যায়ক্রমে উপজেলার ১৫৩টি স্কুলে এমন কাজ করা হবে বলে শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে।

দোলং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক লতিকা সুলতানা জানান, সুস্থ পরিবেশ, সুন্দর মন। এই দু’টো জিনিষ খুব বেশি প্রয়োজন। স্কুলের পরিবেশ সুন্দর হলে পড়াশোনায় মনযোগী হবে শিক্ষার্থীরা। এতে শিশুরা স্কুলমূখী হবে। শুধু তাই নয়, আনন্দের সাথে পড়াশোনা করবে তারা। এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে চাটমোহর উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আশরাফুল ইসলাম বলেন, ছোট বেলা থেকেই শিক্ষার্থীদের শিল্পমনা মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে এবং স্কুলমূখী করতে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

স্কুলে এমন পরিবেশ পেলে শিক্ষার্থীরা স্কুলে এসে আনন্দ পাবে। পড়াশোনায় মনযোগী হবে এবং ঝড়ে পড়া রোধ হবে। মুলত এসব কারণেই এমন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

  • 35
    Shares
শর্টলিংকঃ